CRICKET-BAN-ZIMnews

সফরকারী জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে পাঁচ ম্যাচ ওয়ান ডে সিরিজের দুই ম্যাচ বাকি থাকতেই সিরিজ জয় নিশ্চিত করল বাংলাদেশ। চট্টগ্রামে দুই ম্যাচ জয়ের পর ঢাকাতেও ১২৪ রানের বড় জয় পেয়েছে স্বাগতিকরা।

বুধবার সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৬ উইকেটে ২৯৭ রান করে বাংলাদেশ। জবাবে ৩৯ ওভার ৫ বলে ১৭৩ রানেই শেষ হয়ে যায় সফরকারীদের ইনিংস। বাংলাদেশের পক্ষে আরাফাত সানি ৪টি ও মাশরাফি ২টি উইকেট নিয়েছেন।

২৯৮ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে দলীয় ৯ রানের মাথায় মাশরাফি বিন মুর্তজার বল পুল করতে গিয়ে আরাফাত সানির হাতে ধরা পড়েন ভুসি সিবান্দা। মাশরাফির পরের ওভারের প্রথম বলে উইকেটরক্ষক মুশফিকুর রহিমের ক্যাচে পরিণত হন হ্যামিল্টন মাসাকাদজা। দলের পক্ষে তৃতীয় আঘাতটি হানেন রুবেল হোসেন। দলীয় ৩৯ রানের সময় তার বলে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার হাতে ধরা পড়েন টিমিসেন মারুমা। এরপর কিছুটা প্রতিরোধ গড়লেও বেশি দূর এগোতে পারেননি সফরকারীরা। আরাফাত সানির বলে স্ট্যাম্পিং হয়ে যান সলোমন মিরে। কিছুক্ষণ পর সাকিব আল হাসানের বলে এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়েন ব্রেন্ডন টেইলর। এখানেই মূলত শেষ হয়ে যায় জিম্বাবুয়ের লড়াইয়ের আশা।

এর আগে ব্যাট করতে নেমে দলকে দারুণ সূচনা এনে দেন এনামুল হক বিজয় ও তামিম ইকবাল। টানা দ্বিতীয় ম্যাচে উদ্বোধনী জুটিতে শতরান করেন তারা।
তামিম ব্যক্তিগত ৪০ রানের মাথায় রান আউট হলে ১২১ রানের জুটিটি ভাঙে। দ্বিতীয় রান নিতে গিয়ে শেষ সময়ে তামিমের হাত থেকে ব্যাট পড়ে যায়। হ্যামিল্টন মাসাকাদজা স্ট্যাম্প ভেঙে দেয়ার সময় তামিম দাগ পার হলেও পা ছিল শূন্যে। তাই টানা দ্বিতীয় ম্যাচে রান আউট হয়ে বিদায় নিতে হয় এই তাকে।
দ্বিতীয় উইকেটে ৩৯ রানের জুটি গড়ে মাত্র ৭ রানের ব্যবধানে মুমিনুল হক ও এনামুলের বিদায়ে কিছুটা অস্বস্তিতে পড়ে বাংলাদেশ। তিন নম্বরে ফেরা মুমিনুল (১৫) হ্যামিল্টন মাসাকাদজার বলে টিমিসেন মারুমার ক্যাচে পরিণত হন।
শতকের সম্ভাবনা জাগানো এনামুল ফিরেন ব্যাটিং পাওয়ার প্লের প্রথম বলে। টাফাজওয়া কামুনগোজির বলে বদলি ফিল্ডার শিঙ্গি মাসাকাজার হাতে ধরা পড়েন তিনি। ৯৫ রান করা এনামুলের ১২০ বলের ইনিংসটি ৯টি চারে সাজানো।

এনামুলের বিদায়ের পর পাওয়ার প্লেতে মাত্র ২৭ রান তুলে বাংলাদেশ। তবে এরপরই আক্রমণাত্মক হয়ে উঠেন সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিম। শেষ পর্যন্ত ৪৮ বলে ৭২ রানের জুটি গড়েন তারা।
টিনাশে পানিয়াঙ্গারার এক ওভারে ফিরে যান সাকিব, মুশফিক। ৩৩ বলে ৪০ রান করেন চার নম্বরে নামা সাকিব। ভুসি সিবান্দার ওভারে স্লগ সুইপ করে ছক্কা হাঁকানো মুশফিক ২২ বলে করেন ৩৩ রান। সিবান্দার সেই ওভারে ১৮ রান নেন মুশফিক-সাকিব। সাকিব-মুশফিকের পর মাহমুদুল্লাহ ও সাব্বিরের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে শেষ ১০ ওভারে ১০৩ রান তুলে বাংলাদেশ। জিম্বাবুয়ের পানিয়াঙ্গারা ২ উইকেট নেন ৫৪ রানে।

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here