image_100722দশম জাতীয় সংসদের নতুন ৪৯ সদস্যের মন্ত্রিসভার মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও উপমন্ত্রীদের দফতর বণ্টন করে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। বেশিরভাগ মন্ত্রণালয়ে বহাল রয়েছেন আগের মন্ত্রীরা। এ ছাড়াও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ। আজ রবিবার মন্ত্রিপরিষদ সচিব স্বাক্ষরিত এ-সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে থাকছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, জনপ্রশাসন, প্রতিরক্ষা ও সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ।

অর্থমন্ত্রী হিসেবে বহাল রয়েছেন আবুল মাল আব্দুল মুহিত।

আমির হোসেন আমু পেয়েছেন শিল্প মন্ত্রণালয়, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পেয়েছেন তোফায়েল আহমেদ। কৃষি মন্ত্রীই থাকলেন মতিয়া চৌধুরী।

আবদুল লতিফ সিদ্দিকীকে দেয়া হয়েছে ডাক ও টেলিযোগাযোগ এবং তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়, মোহাম্মদ নাসিম পেয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়, সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ে বহাল রয়েছেন। খন্দকার মোশাররফ হোসেনকে দেয়া হয়েছে প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়।

রাশেদ খান মেননকে দেয়া হয়েছে বেসামরিক বিমান পরিবহণ ও পর্যটন মন্ত্রণালয়। অধ্যক্ষ মতিউর রহমান রয়েছেন ধর্ম মন্ত্রণালয়ে। ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনকে দেয়া হয়েছে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত। মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পেয়েছেন আ ক ম মোজাম্মেল হক। এছাড়াও সাইয়েদুল হক মত্স্য ও প্রাণিসম্পদ, এমাজুদ্দিন প্রামাণিক বস্ত্র ও পাট, যোগাযোগে বহাল রয়েছেন ওবায়দুল কাদের। তথ্যমন্ত্রণালয়ে বহাল আছেন হাসানুল হক ইনু।

আনিসুল ইসলাম মাহমুদ পেয়েছেন পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়, আনোয়ার হোসেন মঞ্জুকে দেয়া হয়েছে পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব। নুরুল ইসলাম নাহিদ শিক্ষা ও শাজাহান খান নৌ-পরিবহণ মন্ত্রণালয়েই বহাল রয়েছেন।

অ্যাডভোকেট আনিসুল হক পেয়েছেন আইন মন্ত্রণালয়, মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া ত্রাণ ও দুর্যোগ, মুজিবুল হক রেলওয়ে, আ হ ম মোস্তফা কামাল পরিকল্পনা, মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার প্রাথমিক ও গণশিক্ষা, আসাদুজ্জামান নূর সংস্কৃতি, সৈয়দ মহসিন আলী সমাজকল্যাণ, শামসুর রহমান শরীফ ভূমি এবং অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম খাদ্য মন্ত্রণায়।

প্রতিমন্ত্রীরা হলেন: মুজিবুল হক চুন্ন (শ্রম ও কর্মসংস্থান), স্থপতি ইয়াফেস ওসমান (বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি), এম এ মান্নান (অর্থ), মির্জা আজম (বস্ত্র ও পাট), প্রমোদ মানকিন (সমাজকল্যাণ), বীর বাহাদুর উশৈসিং তঞ্চঙ্গা (পার্বত্য চট্টগ্রামবিষয়ক), নারায়ণ চন্দ্র চন্দ (মত্স্য ও প্রাণিসম্পদ), বীরেন শিকদার (যুব ও ক্রীড়া), আসাদুজ্জামান খান (স্বরাষ্ট্র), সাইফুজ্জামান চৌধুরী (ভূমি), ইসমাত আরা চৌধুরী সাদেক (প্রাথমিক ও গণশিক্ষা), মেহের আফরোজ চুমকি (নারী ও শিশু), মশিউর রহমান রাঙ্গা (পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়), শাহরিয়ার আলম (পররাষ্ট্র), জাহিদ মালেক (স্বাস্থ), নসরুল হামিদ বিপু (বিদ্যুাত্) এবং জুনাইদ আহমেদ পলক (তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি)।

নতুন মন্ত্রিসভার দুই উপমন্ত্রী হলেন আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব (পানিসম্পদ) ও আরিফ খান জয় (যুব ও ক্রীড়া)।

যেসব মন্ত্রণালয় ও বিভাগ কোনো মন্ত্রী বা প্রতিমন্ত্রীর অধীনে ন্যস্ত করা হয়নি, সেগুলো পুনরাদেশ না দেওয়া পর্যন্ত রুলস অব বিজনেস ১৯৯৬-এর রুল-৩ অনুযায়ী সরাসরি প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্বে থাকবে।

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here