5267cee8c6edf-25-03-13-PM-2

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসে খালেদা জিয়া ‘ভুয়া জন্মদিন’ পালন করেন। ওই দিন তিনি যখন কেক কাটেন তখন কেক কাটার সেই ছুরি তাঁর (প্রধানমন্ত্রীর) বুকে বেঁধে।
আজ বুধবার রাজধানীতে এক অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী ছোট ভাই শেখ রাসেলের ৪৯তম জন্মদিন উপলক্ষে শেখ রাসেল শিশু-কিশোর পরিষদ বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। খবর বাসসের।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘১৫ আগস্ট খালেদা জিয়ার আসল জন্মদিন নয়। তা সত্ত্বেও উনি কেক কেটে ভুয়া জন্মদিন পালন করে থাকেন। ওই দিন তিনি যখন কেকে ছুরি চালান, তখন মনে হয় আমার বুকে সেই ছুরি চালাচ্ছেন। এ সময় আমার ছোট ভাই শেখ রাসেলের মুখটা সামনে ভেসে ওঠে। মনে হয়, রাসেলকে হত্যার দিনে উনি (খালেদা জিয়া) কীভাবে কেক কেটে জন্মদিন পালন করেন!’
প্রধানমন্ত্রী ১৫ আগস্টে ‘ভুয়া জন্মদিন’ পালন থেকে বিরত থাকার জন্য খালেদা জিয়ার প্রতি অনুরোধ জানান। এর পরিবর্তে খালেদা জিয়াকে স্কুলের নিবন্ধনে দেওয়া জন্মতারিখেই জন্মদিন পালনের আহ্বান জানান তিনি।
১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তাঁর পরিবারের অন্য সদস্যদের সঙ্গে খুন হন ওই সময় চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্র রাসেল। তিনি বঙ্গবন্ধুর ছোট ছেলে। শেখ হাসিনা দেশের বাইরে থাকায় সে সময় বেঁচে যান।

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here