কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনকারী বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের সমন্বয়কারী মো. রাশেদ খানকে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ। আজ রবিবার মিরপুর-১৪ নম্বর থেকে শাহবাগ থানায় তথ্যপ্রযুক্তি আইনে (৫৭ ধারা) ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির আইন বিষয়ক সম্পাদক আল-নাহিয়ান খান জয়ের করা মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়।
মামলা বিষয়ে জয় সাংবাদিকদের বলেন, গত ২৭জুন রাশেদ ফেসবুক লাইভে এসে প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি করে। যার ফলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হয়, এ জন্য মামলা করেছি।
এর আগে দুপুরে মো. রাশেদ খানকে বাসা থেকে তুলে নেয়ার অভিযোগ করে তার স্ত্রী রাবেয়া আলো। রাবেয়া আলো বলেন, ‘রাশেদকে বাসা থেকে ডিবি পুলিশ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তুলে নিয়ে গেছে। এ সময় তাকে অনেক মেরেছে। মিরপুর ১৪ নম্বর বাসানটেক বাজার, মজুমদার মোড় ১২ নম্বর বাসা থেকে তাকে তুলে নেয়া হয়। আমি এখন থানায় জিডি করতে যাচ্ছি।’
কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুন বলেন, ‘রাশেদ খান ও মাহফুজ খান দু’জনকে রাশেদের বাসা থেকে তুলে নিয়ে গেছে। এ সময় সাদা পোশাকের পুলিশ ছাড়াও পোশাকধারী পুলিশও ছিল।’
এর আগে রবিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ফেসবুক লাইভে এসে রাশেদ জানান, ডিবি পুলিশ তাকে ধরে নিয়ে যাচ্ছে। তিনি বলেন, ‘আমাকে তুলে নিয়ে যাচ্ছে। আমাকে বাঁচান। আমাকে ধরতে ধাওয়া দিলে আমি দৌড়ে বাসায় এসেছি। এখন দরজায় ধাক্কা দিচ্ছে।’
শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here