জনতার নিউজঃ

ঢাবি’র হলে ‘সালোয়ারের ওপর গেঞ্জি’ নিষিদ্ধ!

‘সালোয়ারের ওপর গেঞ্জি’ পরিধান করাকে অশালীন হিসেবে উল্লেখ করে, ‘দিন বা রাত হোক, হলের ভেতর কখনোই এসব পোশাক পরা যাবে না’ বলে নোটিশ জারি করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কবি সুফিয়া কামাল হল কর্তৃপক্ষ। ওই হলে অবস্থানরত শিক্ষার্থীদের বরাতে জানা গেছে, সম্প্রতি ছাত্রীদের পরিধেয় পোশাক নিয়ে সচেতনতামূলক এমন বিজ্ঞপ্তি জারি করে কর্তৃপক্ষ।

কবি সুফিয়া কামাল হল কর্তৃপক্ষের ওই নোটিশে বলা হয়েছে, ‘হলের ভেতর দিন বা রাত হোক, কখনোই ছাত্রীদের অশালীন পোশাক (সালোয়ারের ওপর গেঞ্জি) পরা যাবে না। এ পোশাকে হলের কার্যালয়ে কোনো কাজের জন্য ঢোকা যাবে না। কেউ যদি তা করেন, তবে শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে হল কর্তৃপক্ষ বিধিমোতাবেক ব্যবস্থা নেবে।’

তবে এই ঘটনাটি প্রকাশ হওয়ার পর তীব্র ক্ষোভ ও মিশ্র প্রতিক্রিয়া প্রকাশ করতে দেখা যাচ্ছে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। একাধিক ভুল বানানে দেওয়া এ নোটিস নিয়ে কেউ কেউ সমালোচনাও করছেন ফেসবুকে। হলে ছাত্রীদের পোশাকের ‘স্বাধীনতায়’ হল কর্তৃপক্ষের ‘এমন হস্তক্ষেপ’ মেনে নেওয়ার মতো না বলেও মন্তব্য করেছেন অনেকে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ওই হলের আবাসিক এক শিক্ষার্থী বলেন, যেকোনো আবাসস্থলে কোনটা শালীন পোশাক আর কোনটা অশালীন পোশাক, সেই মানদণ্ড কোনো ব্যক্তিপ্রতিষ্ঠান নির্ধারণ করে দিতে পারে না। শিক্ষার্থীরা হলের ভেতরে যে পোশাক স্বস্তিদায়ক মনে করেন, সেটাই পরে থাকেন।

উল্লেখ্য, ২০১২ সালে নতুন এ হলটি নির্মিত হলেও ২০১৩ সাল থেকে সেখানে আবাসিকতা পান ছাত্রীরা। বর্তমানে হলের আবাসিক ছাত্রীসংখ্যা দুই হাজার এবং অনাবাসিক ছাত্রীসংখ্যা ৩ হাজার ৩০০। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হলটি উদ্বোধন করেছিলেন। আর নারীর ক্ষমতায়ন এবং নারীর সমতা প্রতিষ্ঠায় সারাজীবন কাজ করা কবি সুফিয়া কামালের নামে হলটির নামকরণ করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here