জনতার নিউজঃ

টাইগারদের দারুন বিজয়!

৪৫ ওভার শেষে জয়ের জন্য টাইগারদের রান প্রয়োজন ৩০। বলও হাতে ছিল ৩০। হঠাৎ মাহমুদুল্লাহর ঝোড়ো ব্যাটিংয়ে ৩ বল যেতে না যেতে দলের খাতায় যোগ হয় ৮টি রান। জয়ের পথে বেশ অনেকখানি নিশ্চয়তার পথ পাড়ি দেয় বাংলাদেশ। ৪৭ ওভার শেষে দলের প্রয়োজন থাকে মাত্র ২০ রান।

এরপর মোটামুটি চাপমুক্তভাবে খেলতে থাকে টাইগাররা। জয়ের জন্য হাতে মাত্র ৫টি রান রেখে ৪৮ ওভার শেষ করে মুশফিক আর মাহমুদুল্লাহ্।

৪৯ তম ওভারের ১ম বলে মুশফিক ১ রান নিয়ে দলের খাতায় আরেকটি রান যোগ করে। আর দ্বিতীয় বলে মাহমুদুল্লাহর ৪ রানে বিজয় ছিনিয়ে নেয় বাংলাদেশ।

সাকিব আল হাসানের উইকে চাপের মুখে পড়েছিল টাইগাররা। কিন্তু মুশফিক আর মাহমুদুল্লাহর ঠাণ্ডা মাথার ব্যাটিং দলকে বিজয়ের আশ্বাস দিয়ে রেখেছে।

ত্রিদেশীয় সিরিজের শেষ ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ২৭১ রানের জয়ের লক্ষ্য নিয়ে খেলছে বাংলাদেশ।

প্রথম উইকেট পতনে একটু সময় নিলেও খুব দ্রুত পরের ৩টি উইকেটের পতন হয়ে যায় টাইগারদের। সাকিব আর মুশফিকের জুটি মোটামুটি সমানতালে রান নিচ্ছিল। হঠাৎ মাঠ ছাড়েন সাকিব। এ মুহূর্তে ব্যাট করছেন মুশফিক এবং মাহমুদুল্লাহ।

এর আগে বাংলাদেশের ইনিংসের শুরুতেই চমক দেখান ব্ল্যাক ক্যাপস অধিনায়ক টম ল্যাথাম। প্রথম ওভারেই বল তুলে দেন অফ স্পিনার জিতান প্যাটেলের হাতে। প্যাটেলের করা প্রথম বলেই লফটেড ছট খেলে ছক্কা হাকান তামিম ইকবাল। পরের ওভারে একরান নিয়ে স্ট্রাইকে পাঠান সৌম্যকে। তিনিও জিতানকে কাভারে তুলে মারতে গিয়ে অ্যান্ডারসনের হাতে তালুবন্দী হন। সৌম্য গোল্ডেন ডাকে প্যাভিলিয়নের পথে হাটা ধরেন। সৌম্যর পর ক্রিজে আসেন আসেন সাব্বির।

এরপর দুজনেই কাউন্টার অ্যাটাক শুরু করেন। দর্শনীয় সব শটে মুগ্ধ করে তোলেন স্টেডিয়ামের দর্শকদের। দুজনে মিলে রানের জুটি গড়ে ১৩৬ রান তোলেন। জুটি গড়ার পথে তামিম তার ক্যারিয়ারের ৩৬ তম ও সিরিজের দ্বিতীয় অর্ধ শতক পূরন করেন। অন্যদিকে সাব্বির তুলে নেন তার ক্যারিয়ারের পঞ্চম ফিফটি।
দিনের শুরুতে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে নিউজিল্যান্ড সংগ্রহ করে ২৭০ রান । তাই টাইগারদের সামনের জয়ের লক্ষ্য দাঁড়ায় ২৭১।

নিউজিল্যান্ডের হয়ে টম ল্যাথাম (৮৪) , রস টেইলর (৬০) ও নিল ব্রুম (৬৩) রান সংগ্রহ করেছেন। অন্যদিকে বাংলাদেশের পক্ষে মাশরাফি, নাসির ও সাকিব ২ টি করে এবং মুস্তাফিজ ও রুবেল ১ টি করে উইকেট লাভ করেছেন।

সিরিজে টানা তিন ম্যাচ জয় লাভ করায় ইতোমধ্যেই সিরিজ চ্যাম্পিয়নশিপ নিশ্চিত করেছে টম ল্যাথামের দল। তবে এই ম্যাচ অনেকটা নিয়ম রক্ষার ম্যাচ হলেও বাংলাদেশের জন্য র‌্যাংকিং পয়েন্ট বাড়িয়ে নেয়ার সুযোগ রয়েছে।

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here