প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কটূক্তি করে স্লোগান দেয়ার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় জামিন নিয়ে আদালত প্রাঙ্গণ ত্যাগের সময় জনতার নিক্ষেপ করা জুতা ও পঁচা ডিমের হামলার শিকার হয়েছেন ইমরান এইচ সরকার।

রোববার দুপুর পৌনে ১২টার দিকে সিএমএম আদালতের সামনে সাধারন জনতা ও ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা এ হামলা চালান। এসময় তারা ইমরানের জামিনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ইমরানকে লক্ষ্য করে ছোড়া ডিম তার শরীরের বিভিন্ন অংশে লেগে ফেটে গিয়ে দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পরে , তখন ইমরান দৌড়ে গাড়িতে গিয়ে উঠে কিন্ত মারমূখি জনতা পঁচা ডিম ও ছেঁড়া জুতা গাড়িতে নিক্ষেপ করে। এসময় দুই একজনের জুতা ইমরানের গায়ে পড়তেও দেখা গেছে বলে জানিয়েছেন তারা।

পরে পুলিশ পরিস্থিতির নিয়ন্ত্রণে আনে।

এসময় ইমরানের বিরুদ্ধে জনগন নানা স্লোগান দেয়, পাশাপাশি গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র যতক্ষণ পর্যন্ত প্রকাশ্যে ক্ষমা না চাইবেন ততক্ষণ তার বিরুদ্ধে আন্দোলন চলবে বলেও জানিয়েছেন মিছিলে অংশ নেয়া জনতা।

রোববার সকালে ঢাকা মহানগর হাকিম এস এম মাসুদ জামানের আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন ইমরান এইচ সরকার ও তার সহযোগী সনাতন উল্লাহ। শুনানি শেষে আদালত তাদের জামিন মঞ্জুর করেন।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, চলতি বছরের ২৮ মে শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে থেকে রাজু ভাস্কর্য পর্যন্ত মিছিল নিয়ে যায় গণজাগরণ মঞ্চের কর্মীরা। ভাস্কর্য নিয়ে অপরাজনীতির প্রতিবাদে করা ওই মশাল মিছিলে নেতৃত্ব দেন ইমরান এইচ সরকার। সনাতন উল্লাহ মিছিলে স্লোগান দেন। মিছিলে প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটূক্তি করে স্লোগান দেন আসামিরা। এ ধরনের স্লোগানে মানহানি হয়েছে বাদী দাবি করেন। ৩১ মে ঢাকা মহানগর হাকিম এস এম মাসুদ জামানের আদালতে মামলাটি দায়ের করেছিলেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় শিক্ষা ও পাঠচক্র বিষয়ক সম্পাদক গোলাম রব্বানী।

https://youtu.be/YR6m1CWq00w

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here