রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক বলেছেন, জিয়াউর রহমান ক্ষমতায় থাকাকালে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বাজানো নিষিদ্ধ করেছিল। পরে বিএনপি-জামায়াত জোট ক্ষমতায় এসে বঙ্গবন্ধুকে ছোট করার চেষ্টা করেছে। কিন্তু সেই ভাষণ আজ বিশ্ব স্বীকৃতি পেয়েছে। যারা বঙ্গবন্ধুকে মানে না তাদের পাকিস্তানে চলে যাওয়া উচিত। মহান স্বাধীনতা দিবস ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে আজ সোমবার বিকালে রাজধানীর আইডিয়াল কলেজে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

মন্ত্রী আরো বলেন, ‘পাকিস্তান আমলেও তারা অত্যাচার, নির্যাতন করত বাঙালিদের ওপর। এই নির্যাতন নিয়ে কেউ কোনো সময় প্রতিবাদ করতে পারত না। মুসলিম লীগের তৎকালীন নেতা সবুর খান, মনিম খানসহ অনেকে সব সময় পাকিস্তানের তাবেদারি করতেন এবং জ্বি হুজুর, জ্বি হুজুর করতেন। কিন্তু বঙ্গবন্ধু কখনও তাবেদারি করেনি। তাই বঙ্গবন্ধুর আহ্বানে ৯ মাস যুদ্ধের পর স্বাধীনতা আসে। কিন্তু সেই বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে একটি রাজনৈতিক দল সব সময় অপপ্রচার চালিয়েছে।’

প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের কথা উল্লেখ করে মুজিবুল হক বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা আজ বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে গেছেন খুব অল্প সময়ে। আজ বিশ্বের বড় বড় নেতা ও মনিষীরা শেখ হাসিনাকে অনুসরণ করেন এবং বলেন,‘গো বাংলাদেশ ফলো শেখ হাসিনা’।”

কলেজের গভর্নিং বডির চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের উপদেষ্ঠা পরিষদের সদস্য এ্যাড. সৈয়দ রেজাউর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যর মধ্যে বক্তব্য রাখেন কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর জসিম উদ্দীন আহম্মেদ, কলেজের উপাধ্যক্ষ মুজিবুর রহমান, গণিত বিভাগের চেয়ারম্যান গোলাম আহসান।

অনুষ্ঠানের শুরুতে মন্ত্রীকে কলেজের পক্ষ থেকে স্মারক সম্মাননা দেওয়া হয়। পরে সাংস্কৃতিক পর্বে ‘রাজাকারনামা’ নামক নাটকটি মঞ্চস্থ করা হয়।

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here