J News
জিএসপি সুবিধা ফেরত পাবে বাংলাদেশ : বাণিজ্যমন্ত্রী

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশি পণ্যের অবাধ বাজার সুবিধা (জিএসপি) দেওয়ার বিষয়ে ওয়াশিংটনের আর কোনো আপত্তি নেই। শিগগিরই বাংলদেশ জিএসপি সুবিধা ফেরত পাবে।

শনিবার দুপুরে চট্টগ্রাম নগরের হালিশহর মাঠে মাসব্যাপী আন্তর্জাতিক বাণিজ্য ও রপ্তানি মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাণিজ্যমন্ত্রী এ কথা বলেন।

চট্টগ্রাম  মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজ মেলার আয়োজন করেছে। ১ ডিসেম্বর  থেকে  মেলা শুরু হবে। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত মেলা চলবে। মেলায় প্রবেশমূল্য ধরা হয়েছে ১০ টাকা।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, টিকফা (বাংলাদেশের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সহযোগিতা ফোরাম চুক্তি) বৈঠক শেষ হয়েছে। তারা এখন বাংলাদেশের বিষয়ে কোনো সমস্যা দেখছে না। মার্কিন কংগ্রেসে বৈঠক হলেই বাংলাদেশ জিএসপি সুবিধা  ফিরে পাবে।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা ছয় বিলিয়ন (৬০০ কোটি) ডলারের পণ্য রপ্তানি করি। আর জিএসপি সুবিধা পাই ২৩ মিলিয়ন (দুই কোটি ৩০ লাখ) ডলারের পণ্যের। জিএসপি সুবিধা আসলে সুনাম। আমাদের সঙ্গে যে কাজটা তারা করেছে, সেটি অন্যায়। আমাদের থেকে অনেক পিছিয়ে আছে, এমন দেশও জিএসপি  পেয়েছে। এ জন্যই আমি বলেছিলাম, এটার ভেতরে অন্য কিন্তু রয়েছে। কারণ পৃথিবীর অনেক দেশ আছে, বাংলাদেশের উত্থান  দেখতে চায় না।’

চট্টগ্রামকে প্রকৃত অর্থে দেশের দ্বিতীয় রাজধানী বানানোর জন্য সরকার অনেক প্রকল্প হাতে নিয়েছে উল্লেখ করে বাণিজ্যমন্ত্রী আরো বলেন, সোনাদিয়ায় গভীর সমুদ্রবন্দর হবে, তাতে কোনো সন্দেহ নেই। কর্ণফুলী টানেল নির্মাণের জন্য আট হাজার কোটি টাকা অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া মাতারবাড়িতে বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ ও এলএনজি আমদানির বিষয়েও কাজ চলছে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পানিসম্পদমন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ বলেন, শুধু ইউরোপ বা আমেরিকা নয়, ধীরে ধীরে বাংলাদেশের বাজার সম্প্রসারিত হচ্ছে ভারত, চীনসহ দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ায়। সরকার এখন সে লক্ষ্যেই কাজ করছে। দেশের উন্নয়নে বেসরকারি খাত সবচেয়ে বেশি ভূমিকা রাখছে।

চট্টগ্রাম  মেট্রোপলিটন  চেম্বারের সভাপতি খলিলুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন সাংসদ আফছারুল আমিন, চট্টগ্রাম উইমেন চেম্বারের সভাপতি কামরুন মালেক,  মেট্রোপলিটন চেম্বারের সহসভাপতি এ এম মাহবুব চৌধুরী,  মেলা কমিটির আহ্বায়ক আমিনুজ্জামান ভূঁইয়া প্রমুখ।

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here