image_90215shibir

রাজধানীতে বাসে পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ আর আগুন দেয়ার ঘটনা নতুন নয়। প্রতিদিনই এসব আগুনে দগ্ধ হয়ে কাউকে না কাউকে যেতে হচ্ছে হাসপাতালে। কিন্তু এই আগুন দিচ্ছে কারা? তার কোন উত্তর মিলছিল না। যানবাহনে আগুন দেয়া কাউকেই এতদিন এভাবে গ্রেফতার করা যায়নি। যে দু’একজন গ্রেফতার হয়েছে তাদের অধিকাংশই ককটেল ছোড়ার ঘটনায়। আর আজ সোমবার একজন গ্রেফতার হল সরাসরি বাসে আগুন দেয়ার অভিযোগে। পত্রিকায় প্রকাশিত ছবি দেখে অপরাধীকে সনাক্ত করে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। অপরাধীর নাম হারুনুর রশীদ। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ বলছে, তিনি একজন শিবির কর্মী। শিবিরের বড় ভাইদের নির্দেশেই দিপন পরিবহনের একটি বাসে তিনি পেট্রোল ছিটিয়ে দেন। আর তখনই আগুন ধরিয়ে দেয় আরেক সহকর্মী।

মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের যুগ্ম কমিশনার মনিরুল ইসলাম আজ এক ব্রিফিংয়ে বলেন, হারুন জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছেন, তিনি কয়েকজন শিবির কর্মীর সঙ্গে মোহাম্মদপুরের একটি মেসে থাকেন। তিনি নিজেও শিবিরের সমর্থক। গত রবিবার শিবিরের বড় ভাইদের নির্দেশেই বাসে আগুন দেয় বলে পুলিশকে জানিয়েছেন হারুন। রবিবার দুপুরে ধানমন্ডি ১৫ নম্বরে দীপন পরিবহনের একটি বাসে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় ৭/৮ জন যুবক। পত্রিকায় প্রকাশিত ওই ঘটনার ছবি দেখে আজ ধানমন্ডি এলাকা থেকে হারুনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গোয়েন্দা কর্মকর্তা মনিরুল ইসলাম বলেন, হারুন জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছেন, তিনি একটি মাদ্রাসা থেকে দাখিল পাশ করেছেন। এরপর তেজগাঁও কলেজ থেকে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় অংশ নেন। বর্তমানে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন শিবিরের এই সমর্থক। আজই তাকে আদালতে পাঠিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ডে নেয়ার আবেদন করেছে পুলিশ। হারুনের কাছ থেকে ঘটনার সময় সঙ্গে থাকা অন্য শিবির কর্মী ও তাকে পেট্

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here