বিএনপি নেতা সাদেক হোসেন খোকাকে খুঁজছে গোয়েন্দা পুলিশ।

সরকারকে হুমকি দিয়ে বক্তৃতা দেয়ার পর থেকেই ঢাকা মহানগর বিএনপির প্রধান ও সাবেক মেয়রের বাড়িতে একাধিকবার অভিযান চালিয়েছে তারা।
গত ১৪ অক্টোবর ঢাকা মহানগর বিএনপির এক সভায় এই বিএনপি নেতা বলেন, “দা-কুড়াল-বল্লম-খন্তা-লাঠিসোঠাসহ যা কিছু আছে, তা নিয়ে সবাইকে প্রস্তুত থাকতে হবে।”
খোকার সন্ধান পেয়েছেন কি না জানতে চাইলে ঢাকা মহানগর পুলিশের যুগ্ম কমিশনার মনিরুল ইসলাম বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “সময় মত খোকা আবার ফিরে আসবেন।”

খোকার বক্তব্যের প্রসঙ্গ ধরে এই পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, “আমার ধারনা, তিনি দা-কুড়াল বানানোর জন্য কোন গোপন জায়গায় গেছেন, সময় মত ফিরে আসবেন।”

রোববার দলীয় সভায় এই বক্তব্য দেয়ার পর সোমবার খোকার গুলশানের বাসায় পুলিশ অভিযান চালায়, তিনি তখন বাড়িতে ছিলেন না।

মঙ্গলবারও খোকার গোপীবাগের বাসায় অভিযান চালায় পুলিশ, সেখানেও তাকে পাওয়া যায়নি।

অভিযানের পর বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেন, “ওই সময় তাদের(পুলিশ) যে চন্ডমূর্তি দেখা গেছে, তিনি(খোকা) থাকলে গ্রেপ্তার হতেন।”

খোকার বক্তব্যের সুর টেনে রিজভীও সরকারকে হুমকি দিয়ে কর্মীদের ‘গোলন্দাজ’ হয়ে উঠতে বলেন।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে মনিরুল ইসলাম বলেন, “এখনো তার কোন খোঁজ আমাদের কাছে নেই, আজ তিনি ঢাকার কোথাও কোন জামায়াতে নামায পড়েছেন এমন কোন তথ্যও আমরা পাইনি।”

বুধবার ঈদ উল আজহার নামাজের পর মহাজোট শরিক জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ হতাশা প্রকাশ করে বলেন, “আলামত ভাল নয়। বিএনপি দেশকে গৃহযুদ্ধের ‍দিকে ঠেলে দিচ্ছে।”

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here