বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে নাজিমউদ্দিন রোডের পুরোনো কারাগারে নেওয়ার পর তাঁকে পেঁপের শরবত ও কিছু ফল পরিবেশন করা হয়। খালেদা জিয়াকে কারাগারের যে কক্ষে রাখা হয়েছে, সেখানে শীতাতপনিয়ন্ত্রণ (এসি) ব্যবস্থা রয়েছে ও টিভিতে ডিস সংযোগ দেওয়া হয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায় ঘোষণার আধা ঘণ্টা পর কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয় খালেদা জিয়াকে। রায়ে খালেদা জিয়ার পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেন আদালত।

কারা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, কারাগারে খালেদা জিয়া সঙ্গে রয়েছে তাঁর ব্যক্তিগত গৃহকর্মী ফাতেমা। কারাগারে নেওয়ার পর কারা চিকিৎসক আহসান হাবিব খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা পরীক্ষা করেন। এ সময় খালেদা জিয়ার রক্তচাপ স্বাভাবিক ছিল। এরপর তাঁকে অল্প চিনিযুক্ত ফলের জুস পরিবেশন করা হয়। এসব ফলের মধ্যে ছিল পেঁপে, আপেল, কমলা ও আঙুর।

বিএনপি চেয়ারপারসন কারাগারে যে কক্ষে আছেন, সেটি আগে জেল সুপারের অফিস কক্ষ ছিল।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কারাগারের এক কর্মকর্তা জানান, কক্ষটি একদম ঝকঝকে করা হয়েছে। কক্ষটিতে শীতাতপনিয়ন্ত্রণ, ডিসের লাইনের ব্যবস্থা ও আরামদায়ক বিছানা রাখা হয়েছে। এ ছাড়া কক্ষের পাশে রান্নাঘর এবং স্বাস্থ্যসম্মত ও পরিষ্কার শৌচাগারের ব্যবস্থা রয়েছে। ওই ব্যক্তি আরও জানান, বিএনপি প্রধান কয়েক দিনের জন্য এখানে থাকবেন। এরপর তিনি পুরোনো কারাগারে ডে কেয়ার সেন্টারের কাছে মহিলা ওয়ার্ডে স্থানান্তরিত হতে পারেন। অথবা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়

শেয়ার করুন
  • 41
    Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here