স্ব স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, ৮ ফেব্রুয়ারি কিছুই হবে না। কারণ এই দিন দেশে অরাজক পরিস্থিতি তৈরি হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই। তিনি বলেন, ‘আইন মেনেই তাঁর (খালেদা জিয়ার) বিচার হচ্ছে। বিচারের রায় যেটি হবে, সেটি কার্যকর হবে। সেটার জন্য প্রস্তুতি নেওয়া বা প্রপাগান্ডা করার প্রশ্নই আসে না।’ গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় চট্টগ্রামের হাটহাজারী দারুল উলুম মঈনুল ইসলাম মাদরাসায় হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফীর সঙ্গে সাক্ষাতের পর এসব কথা বলেন মন্ত্রী।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের মানুষ শান্তিপ্রিয়। মানুষ এই ভাঙচুর ও সন্ত্রাসী কার্যক্রম পছন্দ করে না। আমরা মনে করি কোনো কিছুই হবে না।’

গতকাল বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে হাটহাজারী মাদরাসায় পৌঁছান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। হেফাজত আমিরের সঙ্গে প্রায় ৪৫ মিনিট একান্তে আলোচনা করেন তিনি। আলোচনা শেষে আল্লামা শাহ আহমদ শফীর রুম থেকে বেরিয়ে মন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমি সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত সফরে এসেছি।’ খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মামলার রায়-পরবর্তী সম্ভাব্য পরিস্থিতি নিয়ে হেফাজতের আমিরের সঙ্গে কোনো কথা হয়েছে কি না জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্রসঙ্গ এড়িয়ে যান।

এর আগে ফটিকছড়ির নানুপুরে জামেয়া ইসলামিয়া ওবায়দিয়া মাদরাসার বার্ষিক মাহফিলে অংশ নেন মন্ত্রী। সেখানে তিনি বলেন, ইসলাম শান্তির ধর্ম। সত্যিকার অর্থে যারা বুকে ইসলাম ধারণ করে তারা কখনো জঙ্গি হতে পারে না। জঙ্গিবাদ ইসলাম সমর্থন করে না।

মন্ত্রী হেলিকপ্টারযোগে দুপুর ১টার দিকে নানুপুর লায়লা কবির কলেজ মাঠে নেমে মাদরাসার মাহফিলে যোগ দেন। জুমার নামাজ শেষে বক্তব্য দিয়ে সড়কপথে হাটহাজারী মাদরাসায় যান।

নানুপুর মাদরাসার প্রধান মাওলানা সালাউদ্দিন নানুপুরীর সভাপতিত্বে মাহফিলে আরো উপস্থিত ছিলেন সাতকানিয়ার এমপি আবু রেজা মুহাম্মদ নদভী, স্বরাষ্ট্রসচিব কামাল উদ্দিন আহমেদ, চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক জিল্লুর রহমান, সাবেক এমপি মজহারুল হক শাহ চৌধুরী, চট্টগ্রামের ডিআইজি মনিরুজ্জামান মনির, এসপি নূরে আলম মিনা, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান এ টি এস পেয়ারুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা ফখরুল আনোয়ার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবুল হক, সম্পাদক নাজিম উদ্দিন মুহুরী, মাওলানা মাহমুদুল হাসান মমতাজী প্রমুখ।

শেয়ার করুন
  • 22
    Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here