Report

কুষ্টিয়ার কুমারখালির “গোলেজার নেছা “। শতবর্ষ বয়স পার করেছেন অনেক আগেই। ঠিক মনে করতে পারছেননা। স্বামী মারা গেছে ৭০/৭২বছর আগে। দুই সন্তানের জননী তিনি। এক ছেলে আর এক মেয়ে। ছেলে প্রায় ৫৫বছর আগে আর মেয়ে ২৫ বছর আগে মারা গেছে।পাড়া -প্রতিবশীরা কিছু এনে দিলে খেয়ে ঘুমিয়ে পড়েন দরজা বিহীন এই ভাঙা কুটীরে। মন চাইলে কেউ খাবারের চাহিদা মাঝে মাঝে পূরণ করলে চলাফেরায় সাহায্যের কেউ নেই। সব হারিয়ে বনের পশু পাখির মত বেঁচে থাকার চেয়ে প্রতিনিয়ত মৃত্যুকে আলিঙ্গন করার প্রার্থনা করেন তিনি। শতবর্ষী এই অসহায় নারীর  নামে নেই কোন বয়ষ্ক বা বিধবা ভাতার কার্ড। আর জুটেনা কোন সরকারী সাহায্য।  তার এক প্রতিবেশি জানান, ‘উনি জোরে কথা বলতে পারেন না। তার আপনজন বলতে এই পৃথিবীতে কেউ নেই।  নির্বাচনে এই এলাকায় চেয়ারম্যান-মেম্বার পাল্টায় কিন্তু তার মত অসহায়দের ভাগ্য পাল্টায় না। এলাকাবাসী শতবর্ষী এই বৃদ্ধাকে সরকারী উদ্যোগে ভরণ-পোষণ সহ নিরাপদ আশ্রয়ের জোর দাবি জানিয়েছেন।

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here