কুমিল্লায় বাসে দুর্বৃত্তদের পেট্রোল বোমা হামলায় আট যাত্রী নিহতের মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে গ্রেফতার (কাস্টোডি ওয়ারেন্ট) দেখানোর আদেশ দিয়েছে আদালত। এছাড়া আগামী মঙ্গলবার তার জামিন আবেদনের শুনানির পরবর্তী দিন ধার্য করা হয়েছে। 
 
আজ রবিবার কুমিল্লার ৫ নম্বর আমলী আদালতের বিচারক ও সিনিয়ির জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোস্তাইন বিল্লাহ্ এ আদেশ দেন। আদালত সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।  
 
খালেদা জিয়ার আইনজীবী অ্যাডভোকেট কাইমুল হক রিংকু জানান, গত ১২ মার্চ আদালতে খালেদা জিয়ার হাজিরা পরোয়ানা (প্রোটেকশন ওয়ারেন্ট) প্রত্যাহার ও জামিন আবেদন দাখিল করা হয়েছিল। আদালত রাষ্ট্রপক্ষকে খালেদা জিয়াকে কেন হাজির করা হয়নি জানতে চাইলে রাষ্ট্রপক্ষ জানায়, খালেদা জিয়ার অসুস্থতার কারণে তাকে আদালতে হাজির করা সম্ভব হয়নি। এছাড়া গত ১২ মার্চ গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার আবেদনের প্রেক্ষিতে কুমিল্লার ৫ নম্বর আমলী আদালতের বিচারক বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে ২৮ মার্চ আদালতে হাজিরার নির্দেশ দেন।  
 
উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি ভোর রাতে ২০ দলীয় জোটের টানা অবরোধের সময় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের জগমোহনপুরে একটি নৈশ কোচে দুর্বৃত্তরা পেট্রোল বোমা ছুঁড়ে মারে। এতে ওই বাসের ৮জন যাত্রী দগ্ধ হয়ে মারা যান, আহত হন ২০ জন। এ ঘটনায় চৌদ্দগ্রাম থানার এসআই নুরুজ্জামান বাদী হয়ে ৭৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। মামলায় খালেদা জিয়াসহ বিএনপির শীর্ষস্থানীয় ৬জন নেতাকে হুকুমের আসামি করা হয়। ৭৭ জন আসামির মধ্যে ৩ জন মারা যান, ৫ জনকে চার্জশিট (অভিযোগপত্র) থেকে বাদ দেয়া হয়। খালেদা জিয়াসহ অপর ৬৯ জনের বিরুদ্ধে কুমিল্লা আদালতে তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবির পরিদর্শক ফিরোজ হোসেন চার্জশিট দাখিল করেন।
শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here