সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের গবেষকরা জানিয়েছেন, কুমিরের চর্বিও উত্তম জৈব জ্বালানি বা বায়ো-ফুয়েলের কাজ করতে পারে। কুমিরের চামড়া এবং মাংসে লেগে থাকা চর্বিকে খুব সহজেই বায়ো-ফুয়েলে রূপান্তর করা সম্ভব বলেই জানিয়েছেন গবেষকরা। খবর এমএসএনবিসি-এর।

সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, ইউনিভার্সিটি অফ লুইজিয়ানা’র গবেষক রাকেশ বাজপেয়ী কুমিরের চর্বি থেকে গাড়ির জ্বালানি তৈরির পদ্ধতি উদ্ভাবন করেছেন।

জানা গেছে, গবেষকরা কুমিরের চর্বির শতকরা ৬১ ভাগই জৈব জ্বালানিতে রূপান্তর করেছেন।

গবেষণার ফল প্রকাশিত হয়েছে ইন্ড্রাস্টিয়াল অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং কেমিস্ট্রি রিসার্চ সাময়িকীতে।

গবেষক রাকেশ বাজপেয়ী জানিয়েছেন, কুমিরের চর্বি তেলের চমৎকার উৎস। এ তেল সহজেই বায়ো-ডিজেলে রূপান্তর করা যায়; যা গাড়ির জ্বালানি হিসেবে ব্যবহারযোগ্য।

রাকেশ বাজপেয়ী আরও জানিয়েছেন, কুমির থেকে পাওয়া জ্বালানি তেল হুবহু সয়াবিন থেকে পাওয়া জ্বালানি তেলের মতো।

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here