বরিশালে ট্রলার ডুবির দু’দিন পর শুক্রবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ৬জন মুসল্লির লাশ উদ্ধার করেছে সদর নৌ-থানা পুলিশ। শুক্রবার দুপুরে চরমোনাই ইউনিয়ন সংলগ্ন কীর্তনখোলা নদী থেকে তাদের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।
 
উদ্ধারকৃত মৃতদেহের পরিচয় হল- গাজীপুর পৌরসভার আমানউল্লাহ দেওয়ানের ছেলে শাহ্ আলী (২৮), গাজীপুর জেলার ভবানীপুরের জাকির হোসেন দিলদার (৩০), গাজীপুর সদরের আ. মালেকের ছেলে ইফতেখার (৯), মুন্সিগঞ্জের টংগিবাড়ির উপজেলার পাচনখোলা এলাকার বাদশা ঢালী (৬৫), ময়মনসিংহের মকবুল হোসেনের ছেলে দেলোয়ার হোসেন (২৮) ও লক্ষ্মীপুরের হেদায়েত হোসেনের ছেলে আ. কুদ্দুস (২৪)।
 
নৌ সদর থানার ওসি বেল্লাল হোসেন জানান, বুধবার দুপুরে বরিশাল থেকে চরমোনাই মাহফিলের উদ্দেশ্যে যাওয়া মুসল্লিবাহী একটি ট্রলার কীর্তনখোলা-১০ লঞ্চের সাথে ধাক্কা লাগলে ট্রলারটি ডুবে যায়। সবাই পাড়ে উঠতে পারলেও কয়েকজন নিখোঁজের আশঙ্কা করা হয়। এই ঘটনায় সর্বশেষ এই ৬জনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। সেদিন ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল অনেক খোঁজাখুঁজি করেও কারো মৃতদেহ উদ্ধার করতে পারেননি।
 
ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মুজাহিদ কমিটির যোগাযোগ বিভাগের নৌ-পরিবহন বিষয়ক কাজী মাওলানা মামুনুর রশীদ খান জানান, বুধবার ঐ ট্রলার ডুবির পর শুক্রবার সকালে দু’টি ও দুপুরে চারটি লাশ দেখে তারা পুলিশকে অবহিত করেন।
শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here