newsফেনীর ফুলগাজী উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি একরামুল হক একরাম হত্যা মামলায় বিএনপি নেতা মাহাতাব উদ্দিন আহম্মেদ মিনার চৌধুরীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে আত্মসমর্পণ না করায় আজ রবিবার দুপুরে ফেনীর চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের পে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আলমগীর মুহাম্মদ ফারুকী এই আদেশ দেন।

মাহাতাব উদ্দিন আহম্মেদ মিনার চৌধুরীর আইনজীবী অ্যাডভোকেট মেজবা উদ্দিন খান জানান, একরাম হত্যা মামলার আসামি মাহাতাব উদ্দিন আহম্মেদ চৌধুরী মিনার গত ৩১ জুলাই শারীরিক অসুস্থতার কারণে ঢাকার ইব্রাহিম কার্ডিক হাসপাতালে সিসিইউতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

গত ২০ জুলাই হাইকোর্টের আপিল বিভাগের বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকি আসামি মিনার চৌধুরীর জামিন আদেশ স্থগিত করে দুই সপ্তাহের মধ্যে নিম্ম আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেন।

গত ১৫ জুলাই হাইকোর্টের বিচারপতি সিনিয়র জজ বোরহান উদ্দিন ও একেএম কামাল কাদেরের বেঞ্চ আসামি মাহাতাব উদ্দিন আহম্মেদ মিনার চৌধুরী ছয় মাসের অন্তবর্তীকারীন জামিন প্রদান করে।

উলেখ্য, গত ২০ মে ফেনী শহরের একাডেমি এলাকার বিলাসী সিনেমা হলের সামনে ফুলগাজী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি একরামুল হক একরামকে প্রকাশ্যে গুলি করে, কুপিয়ে ও গাড়িসহ পুড়িয়ে হত্যা করা হয়।

এরপর নিহতের বড় ভাই রেজাউল হক জসিম বাদী হয়ে ফেনী জেলা তাঁতী দলের আহবায়ক বিএনপি নেতা মাহাতার উদ্দিন আহম্মদ চৌধুরী মিনারের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ৩০-৩৫ জনকে আসামি করে ফেনী মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। এই ঘটনায় পুলিশ ও র‌্যাব ৩১ জনকে গ্রেফতার করেছে। এদের মধ্যে একরাম হত্যার সাথে জড়িত থাকার দায় স্বীকার করে ১৬ জন আসামি আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছে।

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here