প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘দেশের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় আবার নৌকা মার্কায় ভোট দিন।’ আজ শনিবার চট্টগ্রাম নগরীর জমিয়তুল ফালাহ জাতীয় মসজিদ ময়দানে আয়োজিত এক সুধী সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘বিগত ১৯৯৬ সাল থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত আওয়ামী লীগ সরকার যে উন্নয়ন পরিকল্পনা নিয়েছিল তা বন্ধ করে দেয়া হয়েছিল। আবার এবার আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে সেগুলোর কাজ শুরু করেছে। ২০২১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তোলার জন্য বর্তমান সরকার যে উন্নয়ন পরিকল্পনা শুরু করেছে তার ধারাবাহিকতা রক্ষা করা দরকার। সরকার ইতিমধ্যে ৬ষ্ঠ পরিকল্পনা কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে। ৭ম পরিকল্পনা গ্রহণের পথে এগিয়ে যাচ্ছে। তাই দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের মাধ্যমে বিশ্বের বুকে মাথা উঁচু করে দাঁড়ানোর জন্য উন্নয়নের ধারাবাহিকতা প্রয়োজন।’ প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘পবিত্র ঈদুল আযহার আগে বহদ্দারহাট ফ্লাইওভার উদ্বোধন চট্টগ্রামবাসীর জন্য সরকারের পক্ষ থেকে ঈদ উপহার।’এ সময় তিনি তার সরকারের নানামুখী উন্নয়নের কথা তুলে ধরেন।

এছাড়া চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি ও মুক্তিযুদ্ধের ম্যুরাল উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বক্তব্য প্রদানকালে শেখ হাসিনা বলেন, ‘যাদের অবদান দেশের স্বাধীনতায় তারা ক্ষমতায় থাকলে দেশের উন্নয়ন হয়। পরাজিত শক্তি ক্ষমতায় থাকলে দেশের উন্নতি হবে না। কারণ তারা এদেশের কল্যাণ চায় না। যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের কাজ শুরু করেছি ও রায়ও পাচ্ছি। যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের রায় কার্যকর করতেও সক্ষম হবো বলে আশা করি। জাতির পিতা যুদ্ধাপরাধীদের বিচার শুরু করেছিলেন। কিন্তু জিয়া অসাংবিধানিক পন্থায় ক্ষমতায় গিয়ে সেই বিচার বন্ধ করে দেয়। তার সরকারের উপদেষ্টা মন্ত্রী বানিয়ে যুদ্ধাপরাধীদের পুরস্কৃত করে। বর্তমান সরকার দেশের মানুষের প্রতি দেয়া অঙ্গীকার অনুসারে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার আবার শুরু করেছে।

সমাবেশ থেকে ডিজিটাল পদ্ধতিতে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (সিডিএ) ১০টিসহ ২৯টি প্রকল্পের উদ্বোধন করেন। এছাড়া বহদ্দারহাট ফ্লাইওভার, প্রেস ক্লাবের বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল ও ক্যান্টনমেন্টে একটি কমপ্লেক্সসহ মোট ৩২টি প্রকল্পের উদ্বোধন করেন।

প্রধানমন্ত্রী সকালে চট্টগ্রাম পৌঁছে প্রথমে চট্টগ্রামের সিডিএ নির্মিত প্রায় দেড় কিলোমিটার দীর্ঘ বহদ্দারহাট ফ্লাইওভারের উদ্বোধন করেন। এরপর চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে প্রেসক্লাবে চত্বরে নির্মিত বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ সম্বলিত ম্যুরালের উদ্বোধন করেন।

সুধী সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সিডিএ চেয়ারম্যান আবদুস ছালাম ও বিগ্রেডিয়ার জেনারেল শামসুল আলম। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন গৃহায়ন ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী আবদুল মান্নান, সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল ইকবাল করিম ভূঁইয়া এবং আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন।pm

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here