5267b9e55b337-muhit

নোবেলবিজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূসের কথাবার্তা সন্ত্রাসীর মতো হয়ে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

আজ বুধবার সচিবালয়ে সরকারি ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ মন্তব্য করেন অর্থমন্ত্রী। ড. ইউনূসের উদ্দেশে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘তিনি শান্তির দূত, কিন্তু তাঁর কথাবার্তা হয়ে গেছে সন্ত্রাসীর মতো।’

গত বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামে অনুষ্ঠিত এক নারী সমাবেশে ড. ইউনূস বলেছিলেন, ‘আমাদের বলতে হবে, যে এটাতে (গ্রামীণ ব্যাংক) হাত দেবে, আমরা সেই হাত ভেঙে দেব।’

ড. ইউনূসকে আবারও রাজনীতিবিদ আখ্যা দিয়ে বরাবরের মতোই অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘তিনি রাজনীতি করছেন। পুরোদস্তুর রাজনীতিবিদ তিনি।’

আগামী রোববার গ্রামীণ ব্যাংক আইনের বিল জাতীয় সংসদে উপস্থাপন করা হতে পারে বলে আশা করছেন অর্থমন্ত্রী।

নির্বাচনের বছরে মোট দেশজ উত্পাদনের প্রবৃদ্ধির (জিডিপি) হার কমে যাওয়ার প্রবণতা দেখা যায়, এ বছরও তেমন আলামত থাকবে কি না—এমন প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, নানা কারণে জিডিপির হার কমে যেতে পারে। তবে, প্রত্যেক বাজেটই সংশোধন করা হয়। এবারও তা-ই হবে।

ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির এটাই শেষ বৈঠক কি না—জানতে চাইলে সাংবাদিকদের মুহিত বলেন, ‘আমি জানি না। আশা করছি নভেম্বরের শেষ সপ্তাহ পর্যন্ত বৈঠক হবে। তবে নতুন কোনো প্রকল্প গ্রহণ না-ও হতে পারে।’ বর্তমান আমলে সরকারি ক্রয়প্রক্রিয়া খুবই স্বচ্ছ হয়েছে উল্লেখ করে অর্থমন্ত্রী বলেন, সরকার চলে গেলেও কারও পক্ষ থেকে মামলা করার কোনো সুযোগ নেই এবার।

একটি জাতীয় দৈনিকের প্রতিবেদনে বিদ্যুত্ খাতের ভবিষ্যত্ নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে—এ প্রসঙ্গে অর্থমন্ত্রী বলেন, এটি হচ্ছে হলুদ সাংবাদিকতা। ৩৭ বছরে যে পরিমাণ বিদ্যুত্ উত্পাদন হয়েছে, তার চেয়েও বেশি বিদ্যুত্ উত্পাদন বাড়িয়েছে বর্তমান সরকার।

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here