AL Logo

নৈরাজ্য বন্ধ না করলে আলোচনা কখনই অর্থবহ হবে না বলে মনে করে আওয়ামী লীগ। জাতিসংঘের বিশেষ দূত অস্কার ফার্নোন্দেজ তারানকোর উপস্থিতিতে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি নেতৃবৃন্দের মধ্যে বৈঠকে এ কথা জানিয়ে দেয়া দেয়া হয়েছে বলে আজ মঙ্গলবার আ.লীগের দফতর সম্পাদক ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বৈঠকে দেশের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়। আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে হরতাল, অবরোধ, রাষ্ট্রীয় সম্পদ ধ্বংস, বাস পুড়ে মানুষ হত্যা, বোমাবাজি, জানমালের নিরাপত্তাহীনতা, হত্যা, নাশকতা বন্ধ করে সুষ্ঠু পরিবেশ সৃষ্টির আহ্বান জানানো হয়।

বিএনপির পক্ষ থেকে তাদের আটককৃত নেতা-কর্মীদের মুক্তির দাবি করা হয়। আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে পুনরায় বলা হয়, এই সমস্ত হত্যা, হরতাল, অবরোধ, শিক্ষা ব্যবস্থা ধ্বংস, রেললাইন উপড়ে ফেলাসহ রাষ্ট্রীয় সম্পদ ধ্বংস, বাস পুড়ে মানুষ হত্যা, বোমাবাজি ও জানমালের নিরাপত্তাহীনতাসহ সকল প্রকার নাশকতামূলক কর্মকাণ্ড বন্ধ করলেই আটককৃতদের মুক্তি এবং আলোচনার অর্থবহ পরিবেশ সৃষ্টি হবে। এই ধরনের নৈরাজ্য বন্ধ না করলে আলোচনা কখনই অর্থবহ হবে না।

বিএনপির পক্ষ থেকে বৈঠকে নির্বাচনকালীন সরকারের বিষয়টি উত্থাপন করা হয়। আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে বলা হয়, হরতাল, অবরোধ সকল নাশকতামূলক কর্মকান্ড বন্ধ করলেই নির্বাচনকালীন সরকারসহ সার্বিক বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হবে।

আওয়ামী লীগের আমির হোসেন আমু এমপি, তোফায়েল আহমেদ এমপি, সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম এমপি ও ড. গওহর রিজভী এবং বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মীর্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ড. আব্দুল মঈন খান ও ড. শমসের মবিন চৌধুরী প্রমুখ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।
– See more at: http://www.kalerkantho.com/online/Politics/2013/12/10/29320#sthash.nW9zsCzR.dpuf

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here