CRICKET-BAN-ZIMnews

টেস্টের পর এবার ওয়ানডে সিরিজেও জিম্বাবুয়েকে হোয়াইট ওয়াশ করল বাংলাদেশ। সিরিজের শেষ ম্যাচে সফরকারীদের বিরুদ্ধে ৫ উইকেটের বড় ব্যবধানে জয় পেয়েছে স্বাগতিকরা।

সোমবার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করা সিদ্ধান্ত নেয় জিম্বাবুয়ে। প্রথমে ব্যাট করে মাত্র ১২৮ রান সংগ্রহ করতে সক্ষম হয় তারা। জবাবে পাঁচ উইকেট হারিয়েই লক্ষ্যে পৌঁছে যায় স্বাগতিকরা।

১২৯ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে দলীয় ১৮ রানের মাথায় টিনাশে পানিয়াঙ্গারা বলে সলোমন মিরের হাতে ধরা পড়ে বিদায় নেন তামিম ইকবাল (১১)। টেন্ডাই চাটারার বলে হ্যামিল্টন মাসাকাদজার হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরেন এনামুল হক (৮)। চাটারার বলে দ্বিতীয় শিকার হন অভিষিক্ত সৌম্য সরকার (২০)। এর পরপরই টিনাশে পানিয়াঙ্গারার বলে হ্যামিল্টন মাসাকাদজার হাতে ক্যাচ দিয়ে শূন্য রানে ফিরে যান সাকিব আল হাসান। দলীয় রান তখন ৫৮। এ সময় কিছুটা চাপে পড়ে স্বাগতিকরা। তবে সেই চাপ খুব একটা অনুভব করতে দেননি মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদুল্লাহ রিয়া। জয় থেকে ৩৬ রান দূরে থাকতে চাটারার বলে টেইলরের গ্লাসবন্দি হন মুশফিকুর রহিম। এর পর আর কোনো উইকেট খোয়াতে হয়নি বাংলাদেশকে। মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ও সাব্বির রহমান দলকে এনে দেন চূড়ান্ত বিজয়।

এর আগে প্রথমে ব্যাট করতে নামা সিকান্দার রাজাকে মুশফিকুর রহিমের গ্লাভসবন্দি করে প্রথম আঘাত হানেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। তবে এরপর দ্রুত রান তুলতে থাকেন হ্যামিল্টন মাসাকাদজা ও ভুসি সিবান্দা। এই দুইজন ছাড়া দলের আর কোনো ব্যাটসম্যান দুই অঙ্কে যেতে পারেননি। এক সময়ে জিম্বাবুয়ের সংগ্রহ ছিল ১ উইকেটে ৯৫ রান। অর্ধশতকে পৌঁছানোর পরপরই হ্যামিল্টন মাসাকাদজাকে বোল্ড করে ৭৯ রানের জুটি ভাঙেন জুবায়ের হোসেন। মাত্র ৩৩ রান যোগ করতে শেষ ৯ উইকেট হারানোয় ১২৯ রানেই থেমে যায় অতিথিদের ইনিংস। মাত্র ১১ রানে হ্যাটট্রিকসহ ৪ উইকেট নিয়ে তাইজুলই বাংলাদেশের সেরা বোলার। ম্যান অফ দ্যা ম্যাচও হয়েছেন তিনিই। এছাড়াও দলের পক্ষে সাকিব ৩টি উইকেট নিয়েছেন।

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here