রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের অনেক কার্যক্রম নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে বিমানমন্ত্রী এ কে এম শাহজাহান কামাল বলেছেন, ‘আমি বিমানমন্ত্রী। আমি বাংলাদেশ বিমানের মন্ত্রী না। বেসরকারি যারা-ইউএস বাংলা, নভোএয়ার, আমি তাদের মন্ত্রী।’ পাশাপাশি বিমানমন্ত্রী হয়েও রাষ্ট্রায়াত্ব সংস্থাটির অনিয়ম সম্পর্কে অন্ধকারে থাকায় দুঃখ প্রকাশ করেন তিনি।

আজ বুধবার মহাখালীর একটি হোটেলে এভিয়েশন অ্যান্ড ট্যুরিজম জার্নালিস্ট ফোরাম আয়োজিত এক সভায় সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে মন্ত্রী বলেন, ‘আমাকে বিমানমন্ত্রী বলা হয়। আমি দুঃখের সাথে বলি, আমার কী দায়িত্ব আছে? বিমানের মহাব্যবস্থাপককে আরেকবার পুনর্বহাল করা হয়েছে, তা একবারও আমাকে জিজ্ঞেস করা হয়নি।’

তিন মাসে আগে বিমান ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পান লক্ষ্মীপুরের প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা শাহজাহান কামাল। রাষ্ট্রীয় সংস্থা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স কোম্পানি হিসেবে পরিচালিত হচ্ছে পরিচালনা পর্ষদের মাধ্যমে, যেখানে মন্ত্রীর তেমন কিছু করার থাকে না বলে আগের মন্ত্রী রাশেদ খান মেননও জানিয়েছিলেন।

২০০৭ সালে কোম্পানি হওয়ার পর বিমান উল্লেখযোগ্য কিছু করতে পারেনি উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘বিদেশি এয়ারলাইন্স এদেশে এসে কোটি টাকা নিয়ে গেলেও বিমান বছরের পর বছর লস কেন করছে?’

এর পেছনের কারণ হিসেবে বিমানের সেবার মান নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে শাহজাহান কামাল বলেন, ‘আপনাদের কাছে টিকিট আছে, অথচ প্যাসেঞ্জারকে বলেন টিকিট নেই। এই যে চুরি, এই যে ডাকাতি কেন হচ্ছে, কারা এজন্য দায়ী? এই যে বিশ্বাসঘাতকতা, এই যে মুনাফেকী; এটা কেন হচ্ছে?’

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here