Anuskaবলিউডের অভিনেত্রী আনুশকা শর্মার সঙ্গে ক্রিকেটার বিরাট কোহলির প্রেমের খবর চাউর হওয়ার পর বিষয়টিকে অস্বীকার করেছিলেন আনুশকা। জোর গলায় দাবি করেছিলেন, বিরাটের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়াননি আর বন্ধুত্বের বাইরে কোনো সম্পর্কই নেই তাঁদের মধ্যে। সম্প্রতি টানা পাঁচ দিন ধরে আনুশকার বাড়িতে অবস্থান করেছেন বিরাট। এবার আনুশকা কী বলবেন?

মুম্বাইয়ের ইয়ারি রোডে আনুশকার বাড়িতে বন্ধু-বান্ধবদের সঙ্গে গত ৩১ ডিসেম্বর বর্ষবরণ উত্সবে মেতে উঠেছিলেন বিরাট। তিনি সারা রাত মাস্তি করে পরদিন বিকেলে আনুশকার বাড়ি ত্যাগ করেন।

ঘটনার এখানেই শেষ নয়। আনুশকা সম্প্রতি জুহুতে বদরিনাথ টাওয়ারের ২০ তলায় তিনটি ফ্ল্যাট কিনেছেন। আনুশকার নতুন বাড়িতে দেখা গেছে বিরাটকে। টানা পাঁচ দিন তিনি সেখানে ছিলেন। আনুশকার বাড়ি থেকেই ক্রিকেট ম্যাচ খেলতে নিউজিল্যান্ড গিয়েছেন তিনি। বদরিনাথ টাওয়ারের একজন নিরাপত্তাকর্মীর উদ্ধৃতি দিয়ে এমনটিই জানিয়েছে টাইমস অব ইন্ডিয়া।

প্রসঙ্গত, একটি শ্যাম্পুর বিজ্ঞাপনচিত্রে কাজ করতে গিয়ে বিরাট কোহলির সঙ্গে আনুশকার সখ্য গড়ে উঠেছিল। গত বছরের ১০ নভেম্বর মধ্যরাতে মুম্বাইয়ের ভারসোভা এলাকায় আনুশকার কালো রঙের রেঞ্জ রোভার গাড়িতে দেখা যায় বিরাটকে। তাঁদের একসঙ্গে দেখা যাওয়ার পর এই জুটির প্রেমের খবর চাউর হয় বলিউডে।

শুরুতে চুপ থাকলেও পরে বিরাট প্রসঙ্গে মুখ খোলেন আনুশকা। তিনি দাবি করেন, ‘আমি বিরাটের সঙ্গে অভিসারে মেতে উঠিনি। তবে তাঁর সঙ্গে আমার দারুণ বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে উঠেছে। বিরাট খুবই ভদ্র ও মার্জিত একজন মানুষ। হ্যাঁ, মাঝেমধ্যে আমাদের দেখা-সাক্ষাত্ হয়। তিনি আমার বাসায় আসেন। আমি মনে করি, এটা খুবই স্বাভাবিক একটি ঘটনা। বন্ধুদের মধ্যে তো দেখা-সাক্ষাত্ হবেই। কিন্তু আমি নিশ্চিত করেই বলতে পারি, আমরা প্রেমের সম্পর্কে জড়াইনি।’

এ ছাড়া আনুশকার প্রতিবেশীদের দাবি, আনুশকার বাড়ি থেকে বিরাটকে বের হতে দেখেছেন তাঁরা। এ বিষয়ে আনুশকার মন্তব্য ছিল, ‘আমার প্রতিবেশীদের অবসর সময় কাটানোর বোধ হয় তেমন কোনো ভালো ব্যবস্থা নেই। এ জন্য আমার ওপর গোয়েন্দাগিরি করেন তাঁরা।’

শুধু তা-ই নয়, আনুশকা তাঁর অ্যাপার্টমেন্ট ভবনের লিফটে এক নারীর সামনে বিরাটের ঠোঁটে চুমু খেয়েছেন বলেও খবর চাউর হয়েছিল। এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে আনুশকা হাসতে হাসতে বলেন, ‘চুমু খাওয়া তো দূরের কথা, কাউকে আলিঙ্গন করার অভ্যাসও আমার নেই। ছবির সেটে সবাই যখন একে অন্যকে আলিঙ্গন করে, তখন খুবই অস্বস্তি অনুভব করি আমি।’

বিরাটের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়াননি দাবি করার কয়েক দিনের মাথায় আনুশকার বাড়িতে মাঝরাতের অতিথি হিসেবে হাজির হন বিরাট। তিনি বেশ নাটকীয়তা করেই মাঝরাতে আনুশকার বাড়িতে যান। দক্ষিণ আফ্রিকা সফর শেষে গত ৩১ ডিসেম্বর রাতে মুম্বাই বিমানবন্দরে নামেন বিরাট। তাঁর সফরসঙ্গী অন্য ক্রিকেটাররা তাঁদের জন্য অপেক্ষমাণ বাসে চেপে বিমানবন্দর এলাকা ত্যাগ করলেও থেকে যান বিরাট।

কিছুক্ষণ পর তড়িঘড়ি করে একটি সাদা রঙের অওডি গাড়িতে চেপে বিমানবন্দর এলাকা ত্যাগ করেন বিরাট। আর তাঁর সঙ্গে থাকা মালপত্র ওঠানো হয় একটি রেঞ্জ রোভার গাড়িতে। গাড়ির নম্বরপ্লেট (এমএইচ.০২.সিআর.৭২৭২) দেখে নিশ্চিত হওয়া যায়, সেটা আনুশকারই গাড়ি।

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here