aL Development
দেশের মানুষকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সমর্থন করার জন্য জনগণকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী মনে করেন, ভোটের মালিক জনগণ। জনগণের অধিকার নিশ্চিত করার জন্যই নির্বাচন করতে চান তিনি। নির্বাচনে কারচুপি করতে পারবেন না খালেদা জিয়া এ কারণে তিনি ইলেকশনে আসতে চান না। বঙ্গবন্ধু আর্ন্তজাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে দেশে ১০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উত্পাদন ক্ষমতায় পৌঁছানো উপলক্ষ্যে এ কথা বলেন। আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জাতীয় বিদ্যুৎ সপ্তাহ ও ১০ হাজার মেগাওয়াট উদযাপনের আলোক উত্সব উপলক্ষ্যে আওয়ামী লীগ সরকারের গত পাঁচ বছরের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ড তুলে ধরেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমি অভিনন্দন জানাই বাংলাদেশের মানুষকে। এদেশের মানুষ আমাকে ভালোবাসে বলেই ২০০৮ সালে ভোট নিয়ে নির্বাচিত করেছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ভোটের মালিক জনগণ। আমরা জনগণের ভোটের অধিকার নিশ্চিত করতে চাই। বিএনপি ভোট কারচুপি করতে পারবে না- সেজন্য বলছে ইলেকশন করবে না।

বর্তমান সরকারের সময়ে হওয়া প্রায় ছয় হাজার নির্বাচন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, একটা নির্বাচন নিয়ে তো কথা বলতে পারে নাই। আওয়ামী লীগ কারচুপিতে বিশ্বাস করে না।

প্রধানমন্ত্রী শিক্ষা, অর্থনীতি, বিদ্যুতসহ বিভিন্ন খ্যাতে সরকারের সাফল্যগুলো তুলে ধরেন এবং আগামী নির্বাচনে আবারো আওয়ামী লীগকে বিজয়ী করার জন্য দেশবাসীর নিকট আহ্বান জানান তিনি। তিনি বলেন, ক্ষমতা দেয়ার মালিক আল্লাহ। ক্ষমতা নেয়ার মালিক আল্লাহ।

দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগকে ভোট দেয়ার যৌক্তিকতা তুলে ধরে শেখ হাসিনা বলেন, আওয়ামী লীগকে আগামীতে ভোট দেবেন এই কারণে আওয়ামী লীগ দেশের উন্নয়ন করে। গতবার যেমন মোবাইল ফোন দিয়েছি। এবার ইন্টারনেট সংযোগ ও ল্যাপটপ দিয়েছি সবার হাতে হাতে। আমরা এ জাতিকে শিক্ষিত জাতি হিসাবে গড়ে তুলতে চাই। মাধ্যমিক পর্যন্ত বিনা পয়সায় বইয়ের ব্যবস্থা করে দিয়েছি। আমরা ব্যবস্থা নিয়েছি লেখাপড়ার।

বিরোধী দলের হরতালকে ঘিরে সারা দেশে অন্তত ২০ জন নিহত হয়েছেন বলে জনসভায় উল্লেখ করেন শেখ হাসিনা। নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে বিএনপির এই আন্দোলনেরও সমালোচনা করেন তিনি।

প্রথমবারের মতো দেশে ১০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উত্পাদন হওয়ায় ‍আমাদের আলোর পথে যাত্রা শুরু হয়েছে বলে মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এ উপলক্ষে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এ মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, আজকের দিনে আমরা উত্সব করছি কারণ বাংলাদেশ ১০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উত্পাদন করেছে। আমরা দেশকে এগিয়ে নিতে চাই। জাতির পিতার সোনার বাংলা হিসেবে গড়তে চাই। আলোর পথে সেই যাত্রা আমরা শুরু করেছি।

নির্বাচনী ইশতেহারের কথা তুলে ধরে শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের ইশতেহারে ছিল ২০১৩ সালের মধ্যে ৭ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উত্পাদন। কিন্তু ইচ্ছে থাকলে সবই হয়। আমরা ১০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উত্পাদন অতিক্রম করেছি। তিনি বলেন, দেশে উত্পাদিত মোট বিদ্যুতের পরিমাণ এখন ১০ হাজার ৯শ ৭৯ মেগাওয়াট। ১৪ সালে আরও ৭০ মেগাওয়াট জাতীয় গ্রিডে যোগ হবে।

এসময় তিনি বিদ্যুৎ ও জ্বালানি মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বিশ্বমন্দা থাকার পরও মোট বাজেটের দুই লাখ ২২ হাজার ৬শ ৯৬ টাকা এ খাতে দিয়েছেন বলে জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা সুশাসন প্রতিষ্ঠা করেছি বলেই এটা সম্ভব হয়েছে। পরে সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে শেখ হাসিনা জাতীয় বিদ্যুৎ সপ্তাহ ও আলোক উত্সবের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন। এর পরপরই হাতিরঝিলে শুরু হয় আলোক উত্সব ও চোখ ধাঁধানো লেজার শো।

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here