presidentরাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেছেন, বিশ্বব্যাপী বাঙালি সংস্কৃতির ক্রমবর্ধমান বিকাশে ‘অমর একুশে গ্রন্থমেলা’ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। তাই এই গ্রন্থমেলাকে কেন্দ্র করে বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে যে মিলনমেলা ঘটে তা দেশ-বিদেশের সকল মানুষকে প্রাণের বন্ধনে আবদ্ধ করেছে।
রাষ্ট্রপতি অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০১৪ উপলক্ষে দেয়া এক বাণীতে কাল  শুক্রবার একথা বলেন।
মো. আবদুল হামিদ বলেন, ‘বায়ান্নর ২১শে ফেব্রুয়ারি মাতৃভাষাকে রক্ষার জন্য ঢাকার রাজপথে দেশের তরুণ সমাজ বুকের রক্ত ঢেলে দিয়েছিল। ভাষার মর্যাদা প্রতিষ্ঠায় বাঙালি যে ন্যায্য সংগ্রামের জন্ম দিয়েছিল তার বার্তা আজ সারাবিশ্বে পৌঁছে গেছে। একুশে ফেব্রুয়ারি তাই বাঙালির হয়েও এখন বৈশ্বিক।’
তিনি প্রতি বছরের মত এ বছরও ফেব্রুয়ারি মাসজুড়ে বাংলা একাডেমি ‘অমর একুশে গ্রন্থমেলা’ আয়োজন করছে জেনে সন্তোষ প্রকাশ করেন। রাষ্ট্রপতি বাঙালি জাতির গৌরবদীপ্ত ভাষার মাসে মাতৃভাষার জন্য জীবন উৎসর্গকারী শহিদদের শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন।’
রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘ভাষা শুধু মনের ভাব প্রকাশের মাধ্যমই নয়, মানুষের অস্তিত্বের ধারক-বাহকও। মনের ভাবাবেগ প্রকাশ ও পারস্পরিক যোগাযোগ ভাষার উপর নির্ভর করেই সম্পন্ন হয়। বাঙালি তার আত্মসম্মানের প্রতীক ও মাতৃভাষা রক্ষার দাবিতেই সংগ্রাম করেছিল।’
তিনি বলেন, একুশের চেতনাদীপ্ত প্রতিষ্ঠান বাংলা একাডেমির ‘অমর একুশে গ্রন্থমেলা’ বাংলা মায়ের জন্য জীবন দানকারী শহীদদের স্মৃতির প্রতি শ্রেষ্ঠ শ্রদ্ধা ; একই সঙ্গে মাতৃভাষা, সাহিত্য ও সংস্কৃতি বিকাশের অঙ্গীকার।
রাষ্ট্রপতি বাংলা একাডেমি আয়োজিত ‘অমর একুশে গ্রন্থমেলা-২০১৪’ ও অনুষ্ঠানমালার সার্বিক সাফল্য কামনা করেন।

শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here